Home / বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি / স্পেসশিপের ডিফেক্ট খুঁজবে মাকড়সা

স্পেসশিপের ডিফেক্ট খুঁজবে মাকড়সা

স্পেসশিপের ডিফেক্ট খুঁজবে মাকড়সা

স্পেসশিপ। অতিদ্রুত বেগে চলা একটি যান। যখন স্পেসশিপ হাজার হাজার মেইল বেগে ছুটে চলে তখন সামান্য একটা ছিদ্র বা ফুটোও ডেকে আনতে পারে মারাত্মক বিপদ। স্ফুলিঙ্গে ধ্বংস হয়ে যেতে পারে পুরো মহাকাশ যান। মুহূর্তেই বিদীর্ণ হয়ে যেতে পারে। তাই স্পেসশিপের সামান্য ফুটো ফাটা বা ডিফেক্ট অনেক বড় নজরে দেখা হয়।

American technology company Lockheed Martin এমন একটা হিলিয়াম চালিত মহাকাশযান তৈরী করেছে যা সরাসরি ভুমি থেকে এমনকি পানি থেকেও উড্ডয়ন করতে পারে।

কিন্তু গ্যাস ভরা মহাকাশযানের আধারে ছিদ্র খুঁজে পাওয়া অত্যন্ত সময় সাপেক্ষ ও বিরক্তিকর ব্যাপার। তাই তারা একাজের জন্য স্বচালিত একটা যন্ত্র আবিষ্কার করেছে যার নাম দেওয়া হয়েছে মাকড়শা :v।

এই রোবটটি দুটি অংশে বিভক্ত যার প্রথম অংশ দেয়ালের বাইরের দিকে লেগে থাকে এবং দেয়াল জুড়ে চুম্বকের সাহায্যে চলাফেরা করে। এবং অন্য অংশটিও ভিতরের দিক  থেকে চুম্বকের মাধ্যমে চলাফেরা করে। প্রথম অংশের নিচে একটা উজ্জ্বল আলোক উৎস থাকে যা  থেকে উজ্জ্ব্যল আলো স্পেসশিপের দেওয়ালে ছুড়ে দেওয়া হয়। এবং অন্য অংশটি দেয়ালের ওপার থেকে শক্তিশালী আলোক সেন্সর দিয়ে পরীক্ষা করে আলো দেয়ালের ওপাশে যাচ্ছে কিনা। যদি কোন ছিদ্র পাওয়া যায় তবে আলোক  রশ্মি দেওয়াল ভেদ করে অপর পাশের রোবটের সেন্সরে গিয়ে পড়ে এবং রোবট ছিদ্র পাওয়ার কথা সেন্ট্রাল কম্পিউটারে জানিয়ে দেয় এবং নিজে থেকে ছিদ্রটি মেরামত করে।

একটি রোবট কোন এরিয়া স্ক্যান করতে ফেইল করলে অন্য রোবট সে এরিয়া স্ক্যান করে যায়। তাই ছিদ্র থেকে যাওয়ার মোটেও সম্ভাবনা থাকে না। বিজ্ঞানের অবদানের কারণে এই একঘেয়েমি কাজ থেকে মানুষ মুক্তি পায়।

উপরের ভিডিও চিত্রে রোবট মাকড়শা কেমনে কাজ করে তা দেখানো হয়েছে।

About lazyfahim

Check Also

পৃথিবীর সবচেয়ে হালকা পদার্থ এরোজেল

পৃথিবীর সবচেয়ে হালকা পদার্থ এরোজেল Aerogel হল একপ্রকার জেল থেকে কৃত্রিমভাবে উদ্ভুত অতি হালকা একধরনের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *